ইসলামিক গল্প, জীবন গল্প, প্রেমের গল্প, রোমান্টিক গল্প, শিক্ষনীয় গল্প

শিক্ষনীয় ছোট গল্প – রাজা ও দরবেশ

/

by Shah suhail

/

No Comments

শিক্ষনীয় ছোট গল্প – রাজা ও দরবেশ

এক দেশে একজন প্রতাপশালী রাজা বাস করতেন। কিন্তু তার চোখে একটি অদ্ভুত সমস্যা দেখা দিয়েছিলো। 

তিনি দিনদিন চোখে কম দেখতে শুরু করেন। তাই তিনি পেরেশান হয়ে রাজ্যের নামীদামী ডাক্তার হাকিমকে ডেকে আনলেন। 

বিভিন্ন হাকিম বিভিন্নভাবে ঔষধপত্র ও পরামর্শ দিলেন। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হলো না। রাজার চোখ ভালো হচ্ছিলো না। 

অবশেষে রাজাকে একজন দরবেশ বাবার সন্ধান দেওয়া হলো। দরবেশ বাবার সন্ধান পেয়ে রাজা পাগলের মতো তার কাছে গিয়ে হাজির হলেন। 

শিক্ষনীয় ছোট গল্প – রাজা ও দরবেশ

দরবেশ – মহারাজ আপনি যে সমস্যায় ভোগছেন তার সমাধন তো খুবই সহজ।

রাজা – যদি সহজই হয় তবে দ্রুত আমাকে সুস্থ করে তুলুন। আমি আর সহ্য করতে পারছি না। 

দরবেশ – ঠিক আছে মহারাজ, আপনি এখন থেকে কেবল লাল রঙের জিনিস দেখবেন। লাল ছাড়া অন্য কোনো রঙের জিনিস দেখবেন না। 

দরবেশের কথা শুনে রাজা তার রাজ দরবারে ফিরে এসে হুকুম জারি করলেন যেন সম্পূর্ণ  রাজপ্রসাদ লাল রঙে রঙিন করে দেওয়া হয়।

রাজার আদেশ মতো সম্পূর্ণ প্রাসাদকে লাল রঙে রাঙিয়ে দেওয়া হয়। রাজা এখন সব সময় কেবল লাল রঙই দেছেন।

লাল রঙ দেখে দেখে রাজার চোখ ভালো হতে লাগলো। রাজ আগের চেয়ে এখন ভালো দেখতে পারেন। 

তাই একদিন সেই দরবেশকে রাজদরবারে আমন্ত্রণ করলেন। যাতে তাকে কিছুটা হাদিয়া তোহয়া দিতে পারেন। 

কিন্তু প্রসাদে আসার পর দরবেশ এক অদ্ভুত কাণ্ডের সাক্ষী হলেন। রাজার প্রহরীরা দরবেশ সাহেবের সাদা পোশাকের উপর লাল রঙ ঢেলে দিলেন। 

লাল রঙ গায়ে নিয়ে দরবেশ রাজার কাছে হাজির হলেন। রাজা দরবেশকে জিজ্ঞেস করলেন – কি অবস্থা?  কেমন আছেন?

দরবেশ – এই তো দেখতেই পাচ্ছেন। আপনার প্রহরীরা আমাকে রাঙিয়ে দিয়েছে। 

রাজা – আপনার পরামর্শ বেশ কাজ দিচ্ছে। যদি আপনার গায়ে সাদা রঙের পোশাক দেখি তবে আবার আগের রোগ শুরু হয়ে যাবে এই ভয়ে আপনার উপর লাল রঙ ঢেলে দিতে বলেছি। 

দরবেশ – মহারাজ, আপনি এতো কষ্ট করে আপনার চারপাশ যদি লাল না করে একটি লাল রঙের চশমা পড়ে নিতেন তাহলে তো সব কিছুই  লাল দেখতে পেতেন। এতো কষ্ট করতে হতো না। 

রাজা – হ্যা – ঠিক তো। একটি লাল চশমা পড়লেই তো হতো। এতো কিছুর দরকার ছিলো না। 

গল্প থেকে শিক্ষা

আমরা কোনো সমস্যায় আক্রান্ত হলে নিজের চারপাশ ঠিক করে নিতে ব্যস্ত হয়ে ওঠি। আমরা আমাদের চারপাশে পরিবর্ত করে সমস্যার সমাধান করতে চাই। 

কিন্তু আমরা এটা চিন্তা করি না যে, ঐ সমস্যার সমাধান আমার নিজের মধ্যেই রয়েছে।

আমাদের মধ্যে একটু পরিবর্তন আনলেই বেশিভাগ সমস্যার সমাধান সম্ভব। 

আরো পড়ুন –

শিক্ষনীয় ছোট গল্প – সালামের প্রতিফল 

একজন পুরুষ একটি কল-কারখানায় কাজ করতেন। একদিন তিনি কাজ শেষ ফ্রিজার রুম পরিদর্শনে যান। কিন্তু দূর্ঘটনাক্রমে রুমের দরজাটি বন্ধ হয়ে যায়।

তিনি সর্বশক্তি দিয়ে চিৎকার করেন। দরজায় জোরে জোরে আঘাত করেন। কিন্তু তার চিৎকার শুনে দরজা খোলার মতো কেউ ছিলো না। 

কেননা তখন ছিলো অফিস ছুটির সময়। তাই বেশির ভাগ কর্মী ইতিমধ্যে চলে গেছেন।

সেই সাথে বন্ধ রুমের আওয়াজ বাহিরে যাওয়া ছিলো প্রায় অসম্ভব।

৪ ঘন্টা পরে তিনি প্রায় মৃত অবস্থায় পড়ে থাকেন। হঠাৎ  কারাখানাটির দারোয়ান এসে দরজা খুলেন। দরজা খোলে এই অবস্থায় লোকটিকে দেখে দারোয়ান তাকে উদ্ধার করে।

দারোয়ানের কারণে সেদিন তিনি নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে যান। এবং দারোয়ানের এই কাজের কারণ জানতে বেশ কৌতুহলী হয়ে ওঠেন।

পরবর্তীতে লোকটি দারোয়ানের কাছে জিজ্ঞেস করেন কেন তিনি সেদিন দরজা খুলতে এলেন? এটা তো তার রুটিন কাজের মধ্যে পড়ে না।

দারোয়ানের ব্যাখ্যা ছিলো এ রকম  –

আমি এই কারখানায় পঁয়ত্রিশ বছর থেকে কাজ করছি। প্রতিদিন অসংখ্য কর্মী আসা যাওয়া করে কিন্তু হাতে গোনা কয়েকজন লোক আমাকে প্রতিদিন সালাম জানায়। 

যারা সালাম জানায় তাদের মধ্যে আপনি একজন। বেশির ভাগ কর্মীর কাছেই আমি একজন নগণ্য মানুষ।

আজ সকালে আপনি প্রতিদিনের মতো সালম দিয়ে বলে কাজে গিয়েছিলেন কিন্তু সন্ধ্যায় আপনি আর বেরিয়ে আসেন নি। আমি কারখানা অনুসন্ধান করার সিদ্ধান্ত নিলাম।

আমি প্রতিদিন আপনার সালামের অপেক্ষায় থাকি। এটার কারণে আমি নিজেকে একটু গর্বিত ভাবি। এটা আমায় মনে করিয়ে দেয় যে আমিও কেউ একজন।

কিন্তু আজকে আপনার ফিরতি সালাম না পেয়ে আমি বুঝতে পারি কিছু একটা ঘটেছে। এজন্য আমি সর্বত্র আপনাকে সন্ধান করতে থাকি।

গল্প থেকে শিক্ষা

এই গল্পের মূল কথা হচ্ছে আপনার আশেপাশে যারা আছে তাদের প্রতি বিনয়ী হোন, তাদের কে ভালোবাসুন।

তাদের কেয়ার করুন। দেখবেন তারা আপনার নিজেদের উজার করে দিতে প্রস্তুত থাকবে।

আপনার সমান্য মূলায়নের ফলে তার ভাবতে শিখবে যে পৃথিবীতে তারাও কেউ। তাদের জন্য কিছু মানুষের মনে শ্রদ্ধা রয়েছে। বিনিয়ে তারা আপনাকে যে প্রতিদান দিবে তা অকল্পনীয়।

About
Shah suhail

Use a dynamic headline element to output the post author description. You can also use a dynamic image element to output the author's avatar on the right.

Leave a Comment